যশোরে যুবদল স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রদলের মিছিলে পুলিশের লাঠিচার্জ

যশোরে যুবদল স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রদলের মিছিলে পুলিশের লাঠিচার্জ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ গতকাল যশোরে যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক ও ছাত্রদলের যৌথ একটি বিক্ষোভ মিছিলে পিছন থেকে লাঠিচার্জ করেছে পুলিশ। এসময় পুলিশি বাধা উপেক্ষা করে মিছিল সম্পন্ন করেন নেতাকর্মীরা। তবে কেশবপুরে পুলিশের বাধায় কর্মসূচি পালন করতে পারেনি যুবদল, স্বেচ্ছাসেবকদল ও ছাত্রদল। জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা আমীর ফয়সাল জানান, সম্প্রতি ঢাকা, চট্রগ্রাম, ব্রাহ্মবাড়িয়াসহ বিভিন্ন জেলাতে আন্দোলনকারী নিরস্ত্র মাদরাসা ছাত্র-শিক্ষকদের ওপর পুলিশ ও ছাত্রলীগ সন্ত্রাসীরা গুলি চালিয়েছে। এ ঘটনায় গত দুই দিনে ১২ জনের প্রাণহানিসহ শত শত মানুষ আহত হয়েছেন। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর দিনে এ ধরণের কর্মকান্ডের প্রতিবাদে রোববার বিকেলে শহরের এমএম আলী রোডস্থ নূর হোটেলের সামনে থেকে জেলা যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রদলের যৌথ উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলের অগ্রভাগে ছিলেন বিএনপির খুলনা বিভাগীয় সহসাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত। এসময় মিছিলটি মাইকপট্টি এলাকা অতিক্রম করার সময় একদল পুলিশ মিছিলের পেছন দিক থেকে আচমকা লাঠিচার্জ করে। এতে মিছিলের নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে নেতাকর্মীরা পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে মিছিল নিয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা অতিক্রম করে রেলরোডস্থ চার খাম্বার মোড়ে গিয়ে শেষ হয়।
স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা মোস্তফা আমীর ফয়সাল জানান, পুলিশের লাঠিচার্জের কারণে দলের বেশ কয়েকজন নেতা আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল, যুবদল ও ছাত্রদলের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়েছে।  যশোর কোতয়ালি থানার ওসি তাজুল ইসলাম বলেন, বিনাঅনুমতিতে মিছিল করলে পুলিশ তাদের নিবৃত্ত করার চেষ্টা করে। তখন মিছিলকারীরা পুলিশের উপর চড়াও হয়। আত্মরক্ষার্থে লাঠিচার্জ করা হয়েছে। অপরদিকে স্টাফ রিপোর্টার, কেশবপুর (যশোর) থেকে জানান, কেশবপুরে যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচি পালন করতে দেয়নি থানা পুলিশ। কেশবপুর পৌর বিএনপির সভাপতি সাবেক মেয়র আলহাজ আব্দুস সামাদ বিশ^াস জানান, বিকেলে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে ওই সংগঠন তিনটির নেতাকর্মীরা সমবেত হলে পুলিশ মিছিলে বাধা দেয়। মিছিলের আয়োজন পন্ড হয়ে যায়। কেশবপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্যসচিব বাবুল রানা বাবু জানান, কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে দলীয় কার্যালয়ের সামনে তারা সমবেত হলে পুলিশ বাধা দেয়ায় মিছিল করা সম্ভব হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *