আমরা সত্য প্রকাশে আপোষহীন

আমাদের সাইটে আপনাকে স্বাগতম।

মাগুরায় ২৫০ সয্যা হাসপাতালে অপারেশন থিয়েটারে এপ্রোন পরে ডা: সহযোগী ঝাড়–দার!

1 min read

আকরাম হোসেন ইকরাম,মাগুরা পৌর প্রতিনিধি॥

মাগুরায় ২৫০ সয্যা হাসপাতালে অপারেশন থিয়েটারে এপ্রোন পরে সার্জনের সহযোগী হিসাবে কাজ করছে হাসপাতালের ঝাড়–দার ।অপরিহার্য জনবল সংকটের কারনে প্রায় প্রতিটি অপারেশনেই হাসপাতালের ওয়ার্ড বয়,এমএলএসএস,কিম্বা পরিছন্ন কর্মীদের সহযোগীতা নিতে হচ্ছে বলে জানান,হাসপাতালের কর্মকর্তারা।রোববার সকাল ১০ টায় হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে আনোয়ারা বেগম নামে একজন বৃদ্ধার শরীরে অস্ত্রপচার করেন মাগুরা সদর হাসপাতালের সার্জন ডাঃ শফিউর রহমান। দুই ঘন্টার বেশী সময় ধরে চলা এ অপারেশনে ডা শফিউর রহমানের সহযোগী হিসাবে অপারেশন থিয়েটারে কাজ করছেন সুবাস চন্দ্র বিশ^াস এবং আবু বক্কার মোল্যা।এম এল এস এস কাম ওয়ার্ডবয় হিসাবে ওই দুই জনের নিয়োগ থাকলেও পরিছন্ন কর্মীর পাশাপাশি অপারেশন থিয়েটারে সার্জনদের পাশে সহযোগী হিসাবে দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে। এ বিষয়ে দায়িত্বরত সার্জন ডা শফিউর রহমান জানান,অপারেশন চলাকালীন একজন সার্জনের সহযোগীতা করার জন্য অন্তত দুইজন সহযোগী ডাক্তার থাকা প্রয়োজন।সেখানে সহযোগী ডাক্তারের পরিবর্তে সুইপারদের নিয়ে কাজ করতে হচ্ছে বিধায় একটি সাধারন অপারেশনেও অতিরিক্ত সময় ব্যায় হচ্ছে। আবার আমরা রোগীদেরকে সঠিক সেবা দেওয়াও সম্ভব হচ্ছে না। তথ্যনুসন্ধানে দেখা গেছে,রোগীর শরীরে অস্ত্রপচারের ক্ষেত্রে অপরিহার্য রয়েছে এনেস্থিসিয়া ডাক্তার অথচ হাসপাতালটিতে গত ৬ মাস ধরে এই পদটি শুন্য রয়েছে। এ বিষয়ে মাগুরা ২৫০ সয্যা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার বিকাশ কুমার শিকদার জানান,হাসপাতালটির নামই কেবল ২৫০ সয্যা।কিন্ত পুরনো ১০০ সয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের জনবল কাঠামো অনুযায়ী ডাক্তার কর্মচারী মিলিয়ে ২০৩ জন থাকার কথা কিন্ত সেখানে মাত্র ১৬৬ জন রয়েছে।অথচ প্রতিদিন ইনডোর আউটডোর মিলিয়ে ১ হাজারের বেশী রোগী দেখতে হয়।এ বিষয়ে হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডাক্তার স্বপন কুমার কুন্ড জানান,প্রয়োজনীয় জনবল নিয়োগ ও পদায়নের বিষয়ে একাধিকবার সংশ্লিষ্ট বিভাগে জানানো হয়েছে। আশা করি সমস্যাটি অতিদ্রুত বাস্তবায়িত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *