সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৫:১১ অপরাহ্ন

Notice :
Welcome To Our Website...
সংবাদ শিরোনাম :
magura আ,লীগ প্রার্থী সাইফুজ্জামান শিখরের নৌকা প্রতিক গ্রহন ঐক্যফ্রন্ট ও জোটের ৬০ প্রার্থী জামায়াত-এলডিপিসহ ২০ দল ৪০ গণফোরাম ৭ জেএসডি ৫ নাগরিক ঐক্য ৫ কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ ৩ জাপার সঙ্গে আ.লীগের আসন জটিলতা কাটেনি মাগুরায় মুক্ত দিবসে বিজয় র‌্যালী উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট দিন -সাইফুজ্জামান শিখর মাগুরায় গ্রাম-পুলিশদের জন্য থানা চত্তরে বিশ্রামাগার নির্মান কোনো অপশক্তিই নৌকার গতি রোধ করতে পারবে না : আব্দুর রহমান মাশরাফি’র ভোট ক্যাম্পেইন করতে নাগরিক প্লাটফরম গঠনের উদ্যোগ এইচআইভি সম্পর্কে আপনার ভুল ধারণাগুলো শুধরে নিন যশোরে তৈরি ক্যারম বোর্ড যাচ্ছে সারা দেশে
সংসদ নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণ নিশ্চিত নয়

সংসদ নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণ নিশ্চিত নয়

নিউজ ডেস্ক :
সংসদ নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণ এখনও নিশ্চিত নয়। যতোই দিন যাচ্ছে শেখ হাসিনার অধীনে বিএনপির নির্বাচনে না যাওয়ার সম্ভাবনা বাড়ছে। দলটির যেসব নেতা নির্বাচনে অংশ নিতে ইচ্ছুক ছিলেন, সুর পাল্টাচ্ছেন তারাও। তারা এখন দাবি করছেন শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন সম্ভব নয়। খুলনা ও গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের পর এই দাবি আরও জোরালো হতে শুরু করেছে।
বিএনপির মাঠ পর্যায়ের নেতারাও এখন নিরপেক্ষ সরকার চাচ্ছেন। একইসঙ্গে তারা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতেও সোচ্চার। এসব নেতাদের দাবি নির্বাচনে শান্ত এবং স্থিতিশীল পরিস্থিতি দেখাবে সরকার। তবে ‘প্রশাসনিক ক্যু’র মাধ্যমে আওয়ামী লীগের পক্ষেই রেজাল্ট যাবে বলেও দাবি করেছেন বিএনপির এসব নেতারা।
এ প্রসঙ্গে কথা বলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, বিএনপি এখন আগের থেকে আরও ঐক্যবদ্ধ। এখন আমাদের একটাই কর্মসূচী। আর তা হলো- বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচনের আন্দোলন। আমরা এখন এই দাবি আদায়ে প্রস্তুতি নিচ্ছি।
কথা বলেছিলেন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চাওয়া বিএনপির কিছু নেতা। তারা তাদের মনোভাব ব্যক্ত করেন এভাবে- সারা দেশে বিএনপির যথেষ্ঠ জনপ্রিয়তা রয়েছে। এই জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগাতে পারলে সরকারের পক্ষে অনিয়ম করা সম্ভব নয়। তবে খুলনা ও গাজীপুর সিটি নির্বাচন তাদের এ ধারণায় পরিবর্তন এনেছে।
তাদের দাবি, ওই দুই সিটি নির্বাচনে বিএনপির অনেককেই গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। অনেককে এলাকা ছাড়াও করা হয়েছে। যারা পোলিং এজেন্ট ছিল তাদের অনেককেও গ্রেপ্তার বা আটক করা হয়। তবে সেখানে ভোটের দিন কোনো সহিংসতাও হয়নি। এটাই দৃশ্যমান ছিল।
বিএনপির এসব নেতার দাবি, এই স্টাইলেই জাতীয় নির্বাচনও অনুষ্ঠিত হবে। একই মনোভাব ব্যক্ত করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গাজীপুর সিটি নির্বাচনের পরদিন তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশনকে ব্যবহার করে নির্বাচনের ফল নিজেদের পক্ষে নিয়েছে। জনগণ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেনি।
সিটি নির্বাচন নিয়ে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনও। তিনি বলেন, নির্বাচনের আগের দিন রাতেই নৌকা প্রতীকে সিল মারা হয়েছে। বিএনটির এজেন্টদের ভোটন কেন্দ্রে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। এভাবে ষড়যন্ত্র করে গাজীপুরের নির্বাচনে সরকার, নির্বাচন কমিশন ও স্থানীয় প্রশাসন এক হয়ে কাজ করেছে।
এই প্রসঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বরচন্দ্র রায়ের মনোভাব জানতে চাইলে তিনি বলেন, শেখ হাসিনার অধীনে ফেয়ার নির্বাচন সম্ভব নয়। তিনি ৭৩ বছর বয়সে খালেদা জিয়াকে ভিত্তিহীন মামলায় কারাবন্দি করে রেখেছেন।
এখান থেকেই তো পরিষ্কার ধারণা পাওয়া যায় সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করার মতো ইচ্ছে সরকারের নেই। এটুকু বোঝার জন্য আলাদাভাবে পড়াশোনা করার প্রয়োজন হয় না।
তবে হতাশ হচ্ছেন না বিএনপি। তাদের মধ্যে নতুন করে আশা জেগেছে। খুলনা ও গাজীপুরে নির্বাচনের পরে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সংস্থার কাছ থেকে যে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া এসেছে। যা সরকারের মুখোশ উন্মোচন করেছে বলে দাবি দলটির।
এসব নিয়েই এগিয়ে যেতে চাই বিএনপি। এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সম্প্রতি ৬ ঘণ্টার লম্বা মিটিং করেছেন দলটির শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা। সেখানে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিশ্লেষণমূলক মতামত ব্যক্ত করেছেন তারা। আন্দোলনের বিভিন্ন ইস্যুও নির্ধারণ করেছন তারা।
এই মিটিংয়ে অনেক নেতাই বলেছেন রাজপথে আন্দোলন ছাড়া যেমন খালেদা জিয়ার মুক্তি মিলবে না, তেমনই নিরপেক্ষ সরকারের দাবিও পূরণ হবে না। তাই আন্দোলনের গতি বাড়াতে হবে তৃণমূল থেকে।
কেমন হবে বিএনপির আন্দোলন। কি নীতি নির্ধারণ করা হলো মিটিংয়ে। এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু না জানা গেলেও কিছুতো বলেছেন আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন করা হবে রাজপথে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




  • ডিজাইনঃবেসিক নিউস২৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com