শনিবার, ২১ Jul ২০১৮, ০১:২৪ অপরাহ্ন

হাসপাতালে রোগীর খাবার নিয়েও নয়-ছয়

হাসপাতালে রোগীর খাবার নিয়েও নয়-ছয়

নিউজ ডেস্ক :
মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালের রোগীদের জন্য বরাদ্দকৃত খাবার লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার মাগুরা জেলা প্রশাসনের দু’জন ম্যাজিস্ট্রেট সরেজমিন তদন্তে গেলে এসব তথ্য বেরিয়ে আসে।
জেলা প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেট ফারুক আহম্মেদ ও কাউছার হাবিব জানান, জেলা প্রশাসকের নির্দেশে সদর হাসপাতালে সরকার নির্ধারিত খাদ্যের মান এবং খাদ্য তালিকা তারা সরেজমিনে যাচাই করতে যান। এ সময় রোগীদের পুষ্টিকর খাবার সরবরাহে নানা অনিয়ম দুর্নীতির প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া যায়। এ বিষয়ে প্রতিবেদন জেলা প্রশাসনে জমা দেওয়া হবে বলেও নিশ্চিত করেন এ দু’কর্মকর্তা।
ম্যাজিস্ট্রেটদের তদন্ত চলাকালীন রোগীরা অভিযোগ করেন, সকালে ও দুপুরে যে পরিমাণ মাছ, মাংসসহ দুধ, ডিম, চিনি ও শাক সবজি হাসপাতাল থেকে সরবারাহ করা হয় তা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। এছাড়া এসব খাবারের মানও নিম্নমানের। বেশির ভাগ সময়ই রোগীদের বাইরের হোটেল থেকে খাবার কিনে আনতে হয়।
হাসপাতালের সহকারী বাবুর্চি রেহেনা বেগম বলেন, ঠিকাদাররা ঠিকমতো খাবার সরবারাহ করেন না। মাংসের পরিবর্তে ফ্যাকশা-ফিলাইসহ চামড়া সরবরাহ করে থাকেন তারা। এছাড়া প্রতি কেজি মাছ, মাংস, সবজি ও চাল ওজনে এবং পরিমাণে কম দেয়া হয়।
এ ব্যাপারে হাসপাতালে খাবার সরবরাহে নিয়োজিত ঠিকাদার ফারুক আহম্মেদ বলেন, তার লাইসেন্সে কাজ নেওয়া হলেও স্থানীয় প্রভাবশালীরা সাব-ঠিকাদার হিসেবে হাসপাতালে খাবার সরবরাহ করে থাকেন।
হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. সুশান্ত কুমার বিশ্বাসের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, খাবার নিয়ে কেউ কখনও তার কাছে অভিযোগ করেনি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




  • ডিজাইনঃবেসিক নিউস২৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com