সোমবার, ২৫ Jun ২০১৮, ০৮:১২ পূর্বাহ্ন

পোশাক খাত নিয়ে ‘টম অ্যান্ড জেরি’ খেলছে সরকার : বিজিএমইএ

পোশাক খাত নিয়ে ‘টম অ্যান্ড জেরি’ খেলছে সরকার : বিজিএমইএ

নিউজ ডেস্ক :
সরকার পোশাক খাত নিয়ে ‘টম অ্যান্ড জেরি’ খেলছে বলে মন্তব্য করেছে তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমই।
সংগঠনের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বলেছেন, ‘সবাই পোশাক খাত ভালোবাসেন, তাই টম অ্যান্ড জেরি খেলেন।’
রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বিজিএমইএ ভবনে শনিবার প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করে তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ। এতে লিখিত বক্তব্য পড়েন সংগঠনের সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান।
প্রত্যেক বছর বাজেট ঘোষণার সময় পোশাক খাতের কর বৃদ্ধি করা হয়। পরে পোশাকশিল্প মালিকেরা সরকারের উচ্চপর্যায়ে দেন দরবার করে সেসব কমিয়ে নেন। কেন এমনটা হচ্ছে, সেই বিষয়ে এক সাংবাদিকের প্রশ্নের প্রশ্নের জবাবে বিজিএমইএর সভাপতি কথাটি বলেন।
আগামী ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে পোশাক খাতের করপোরেট কর ১২ শতাংশ থেকে বৃদ্ধি করে ১৫ শতাংশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এছাড়া নতুন করে কোনো কর না দেওয়ায় পোশাক রপ্তানিতে উৎসে কর দশমিক ৭০ থেকে বৃদ্ধি পেয়ে ১ শতাংশ হয়ে যাচ্ছে। তবে কর বৃদ্ধি নিয়ে মোটেই চিন্তিত নন পোশাকশিল্পের মালিকেরা। বিজিএমইএর সভাপতি বলছেন, সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ে কথা বলে করপোরেট কর ও উৎসে কর কমিয়ে আনবেন।
বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ‘ব্যাংক খাতের করপোরেট কর কমানো হয়েছে। কিন্তু যে খাতে সবচেয়ে বেশি কর্মসংস্থান হচ্ছে সেই পোশাক খাতের করপোরেট কর বাড়ানো হয়েছে। আমরা মনে করি, করপোরেট কর বাড়ানোর ফলে পোশাকশিল্পের উদ্যোক্তারা নিরুৎসাহিত হবেন। সরকারের কাছে আমাদের অনুরোধ, পোশাকশিল্পে করপোরেট করহার ১০ শতাংশ নির্ধারণের বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করুন।’
উৎসে কর নিয়ে বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, ‘পোশাকশিল্প থেকে আমাদের একান্ত অনুরোধ ছিল, বর্তমান পরিস্থিতিতে খাতটির সংকটময় পরিস্থিতি বিবেচনা করে আগামী তিন বছরের জন্য পোশাক রপ্তানিতে উৎসে কর সম্পূর্ণভাবে প্রত্যাহার করা হোক। তবে এ বিষয়ে বাজেটে সুস্পষ্ট দিকনির্দেশনা না থাকায় বিদ্যমান আয়কর অধ্যাদেশের ৫৩ (বিবি) ধারায় রপ্তানির উৎসে কর স্বয়ংক্রিয়ভাবে ১ শতাংশ হারে নির্ধারিত হয়েছে। প্রতিবছরই বাজেট ঘোষণায় উৎসে কর ১ শতাংশ হারে নির্ধারণ করা হলেও পরবর্তী সময় আমরা সরকারের উচ্চপর্যায়ের সঙ্গে আলোচনা করে তা কমিয়ে আনি।’
সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ‘রপ্তানির ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে, প্রত্যক্ষ রপ্তানিকারকের কাছ থেকে উৎসে কর কাটা হচ্ছে। সেই সঙ্গে একই রপ্তানির ঋণপত্রের বিপরীতে প্রচ্ছন্ন রপ্তানিকারকদের যেমন-সুতা, কাপড়, এক্সেসরিজ সরবরাহকারীদের থেকেও একই হারে উৎসে কর কর্তন করা হচ্ছে। এটি কোনোভাবেই যুক্তিসংগত নয়।’
আগামী অর্থবছরের বাজেটকে স্বাগত জানিয়ে বিজিএমইএর সভাপতি বলেন, দেশের অর্থনীতির সঙ্গে সংগতি রেখে বড় বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। তবে বাজেট বাস্তবায়নে মনোযোগী হতে হবে। না হলে ২০৩০ সালের মধ্যে মধ্য আয়ের দেশ হওয়া সম্ভব না।
প্রসঙ্গত, টম অ্যান্ড জেরি হচ্ছে হলিউডের মেট্রো গোল্ডউইন মেয়ার স্টুডিওর তৈরি ও বর্তমানে হ্যানা বার্বেরা স্টুডিওতে তৈরি জনপ্রিয় কার্টুন। এতে টম একটি বিড়াল ও জেরি একটি ছোট ইঁদুর। তাদের নানা রকম দুষ্টুমি এই কার্টুনের প্রধান আকর্ষণ।
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহসভাপতি এসএম মান্নান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




  • ডিজাইনঃবেসিক নিউস২৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com